ঢাকা বৃহঃস্পতিবার, ২৯শে ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১৭ই ফাল্গুন ১৪৩০


সুজানগরে টমেটো চাষে ভাগ্য বদলের স্বপ্ন দেখছেন চাষিরা


৩১ জানুয়ারী ২০২৪ ১০:২১

সংগৃহিত

আধুনিক প্রযুক্তি,কৃষকদের অক্লান্ত পরিশ্রমে বদলে গেছে সুজানগরের চরাঞ্চলের কৃষির চিত্র। কৃষি ক্ষেত্রে টমেটো চাষে নীরব বিপ্লব ঘটেছে সর্বত্র। শীতকালীন টমেটো চাষে এ বিপ্লব ঘটিয়েছেন পাবনার সুজানগরের চরাঞ্চলের কৃষকেরা। তারা হেক্টর প্রতি প্রায় ২৪-২৭ টন টমেটো উৎপাদন করছেন।

উৎপাদিত টমেটো স্থানীয় চাহিদা মিটিয়ে দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে সরবরাহ করা হচ্ছে। ভালো দাম পাওয়ায় খুশি চাষিরা। উৎপাদন খরচ বাদে হেক্টর প্রতি ৫-৬ লাখ টাকা লাভ হয়েছে বলে জানান তারা। ফলে টমেটোর চাষ বাড়ছে। উচ্চ ফলনশীল এ টমেটো চাষের সম্ভাবনাময় উপজেলা সুজানগর। উপজেলার সাগরকান্দি ইউনিয়নের চর খলিলপুরের চরঞ্চালের টমেটো ক্ষেতে গিয়ে দেখা যায় ,সবুজ পাতার ভেতর থেকে উঁকি দিচ্ছে টমেটো। স্থানীয় কৃষক আব্দুল আজিজ নিজের এক বিঘা জমিতে টমেটা চাষ করেছেন। তিনি  জানান, এরই মধ্যে ৫০ শতাংশ টমেটো বিক্রি হয়েছে। আশা করছি এবারে টমেটোর ভালো দাম পাওয়ায় লাভটাও বেশি হবে।

জানা যায়, টমেটো চাষে ভাগ্যবদল হচ্ছে সুজানগরের চাষিদের। বর্তমানে হেক্টরপ্রতি ৩২-৩৬ টন পর্যন্ত টমেটো চাষ হচ্ছে। এসব টমেটো হাটে-বাজারে নিতে হয় না। বিভিন্ন জেলার পাইকাররা জমি থেকেই কিনে নিয়ে যাচ্ছেন এই টমেটো। তাই কম খরচে টমেটো চাষ সুজানগরের কৃষকদের কাছে জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে। উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর জানায়,এ বছর টমেটো আবাদের লক্ষ্যমাত্রা ধরা হয়েছিল ৫১০ হেক্টর জমিতে।

আবাদ হয়েছে ৫২০ হেক্টর জমিতে। সুজানগর উপজেলা কৃষি অফিসার রাফিউল ইসলাম জানান, এ বছর টমেটো চাষ করে লাভবান হচ্ছেন এ অঞ্চলের কৃষকরা। আগামী বছর যেন আরও বেশি পরিমাণ জমিতে টমেটো চাষ হয়, সে জন্য কৃষকদের উৎসাহিত করা হচ্ছে।