ঢাকা বৃহঃস্পতিবার, ২রা জুলাই ২০২০, ১৯শে আষাঢ় ১৪২৭


কখন নামাজ পড়া সম্পূর্ণরূপে হারাম !


৭ সেপ্টেম্বর ২০১৮ ১৯:০৮

আপডেট:
২ জুলাই ২০২০ ১৯:২৫

ইসলাম ৫টি মুল ভিত্তির উপর প্রতিষ্ঠিত।এদের মধ্যে নামাজ অন্যতম। প্রত্যেক মুসলিম নর-নারীর উপর নামাজকে ফরজ করা হয়েছে। প্রতিদিন মুসলমানদের উপর পাঁচ ওয়াক্ত নামাজ ফরজ কা হয়েছে।

এছাড়াও হাদীসে নামাজের ফজিলত সর্ম্পকে আলোচনা করা হয়েছে। একজন মুসলিম তার ইচ্ছা মতো নফল নামাজ আদায় করতে পারে। যার কোনো বাধা-নিষেধ নেই।
তবে এমন কিছু সময় আছে যখন নামাজ পড়া সম্পূর্ণরূপে হারাম। হাদীস থেকে জানা যায়, ৩ সময়ে নামাজ পড়া নিষেধ।

সাহাবী উকবা বিন আমের জুহানী (রা.) বলেছেন, ৩টি সময়ে রাসুল (সঃ) নামাজ পড়া ও মৃত ব্যাক্তিকে দাফন করতে নিষেধ করতেন।
১. সূর্য যখন উদয় হয়, যতোক্ষণ না তা পুরোপুরি উঁচু হয়ে যায়।
২. সূর্য মধ্যাকাশে অবস্থানের থাকলে। অথবা, মাথার উপর সূর্যের অবস্থানের থাকলে।
৩. সূর্য অস্ত যাওয়ার সময়। [সুবুলুস সালাম : ১/১১১, সহীহ মুসলিম : ১/৫৬৮] উক্ত হাদীসের আলোকে নামাজের নিষিদ্ধ সময় তিনটি।

উল্লিখিত তিন সময়ে সব ধরনের ফরজ বা নফল নামাজ পড়া নিষেধ। তবে ওই দিনের আসরের নামাজ যদি কেউ সঠিক সময়ে পড়তে না পারে সে ক্ষেতে কাযা না করে পড়ে নিতে হবে।

কারণ রাসুল (স:) বলেছেন, যে ব্যক্তি সূর্য ডোবার পূর্বে আসরের এক রাকাত নামাজ পড়তে পারলো সে পুরো আসরের নামাজই পেলো।

সাহাবী আবু সাঈদ খুদরী (রা.)বলেছেন, ‘আমি রাসুল (স:) বলতে শুনেছি, ফজরের পর থেকে সূর্যোদয় পর্যন্ত কোনো নামাজ নেই। আসরের পর থেকে সূর্যাস্ত পর্যন্ত কোনো নামাজ নেই। [সহীহ মুসলিম : ৮২৭]

এসএমএন