ঢাকা বৃহঃস্পতিবার, ২০শে ফেব্রুয়ারি ২০২০, ৮ই ফাল্গুন ১৪২৬


পরীক্ষার্থীদের উত্তর বলে দিয়ে জেলে গেলেন শিক্ষক


১১ ফেব্রুয়ারি ২০২০ ১৮:০৫

আপডেট:
২০ ফেব্রুয়ারি ২০২০ ০৩:১৭

মৌলভীবাজারের জুড়ীতে চলমান দাখিল পরীক্ষায় নিজ প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীদের উত্তর বলে দেওয়ার অপরাধে আতিকুল ইসলাম নামে এক শিক্ষককে কারাদণ্ড ও জরিমানা করেছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। আতিকুল উপজেলার জাঙ্গীরাই দাখিল মাদরাসার সহকারী শিক্ষক। তার বাড়ি উপজেলার জায়ফরনগর ইউনিয়নের জাঙ্গীরাই গ্রামে।

উপজেলা প্রশাসন সূত্রে জানা যায়, মঙ্গলবার উপজেলার হযরত শাহ খাকী ইসলামিয়া আলিম মাদরাসা পরীক্ষা কেন্দ্রে দাখিল গণিত পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। পরীক্ষায় কেন্দ্রের ৫ নং কক্ষে হল পরিদর্শকের দায়িত্বে ছিলেন শিক্ষক আতিকুল ইসলাম। এ সময় তিনি অনিয়মতান্ত্রিকভাবে তার কক্ষের দায়িত্ব রেখে কেন্দ্রের ৩নং কক্ষে গিয়ে তারই নিজ প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীদের গণিতের নৈব্যক্তিক পরীক্ষায় উত্তর বলে দিচ্ছিলেন। বিষয়টি কেন্দ্রের দায়িত্বপ্রাপ্ত ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা উপজেলা সমাজসেবা অফিসার রাখেশ পালের নজরে পড়লে তিনি বিষয়টি উপজেলা নির্বাহী অফিসার অসীম চন্দ্র বণিককে অবগত করেন। পরে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও ইউএনও অসীম চন্দ্র বণিক পরীক্ষা কেন্দ্রে উপস্থিত হয়ে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করে শিক্ষক আতিকুল ইসলামকে ৫ হাজার টাকা জরিমানা আদায় ও ৭ দিনের বিনাশ্রম কারাদণ্ড প্রদান করেন। এ ছাড়া তার অপরাধ প্রমাণিত হওয়ায় ভবিষ্যতে কোনো পাবলিক পরীক্ষায় হল পরিদর্শকের দায়িত্ব পালন করতে পারবেন না।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) অসীম চন্দ্র বণিক বলেন, শিক্ষক আতিকুল ইসলাম তার অপরাধের কথা স্বীকার করেছেন। শিক্ষকদের অনৈতিক কর্মকাণ্ডে উপযুক্ত শাস্তি হওয়া উচিত। পরীক্ষা কেন্দ্রের দায়িত্ব পালনে কোনো অনিয়ম হলে কাউকে ছাড় দেওয়া হবে না।

জুড়ী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জাহাঙ্গীর হোসেন সরদার বলেন, সাজাপ্রাপ্ত শিক্ষক আতিকুলকে মৌলভীবাজারের কারাগারে পাঠিয়ে দেওয়া হয়েছে।

নতুনসময়/আইকে