ঢাকা শুক্রবার, ২৬শে এপ্রিল ২০১৯, ১৪ই বৈশাখ ১৪২৬


নিকের সঙ্গে সম্পর্কের টানাপোড়া, রেগেছেন নায়িকা প্রিয়াঙ্কা


৭ এপ্রিল ২০১৯ ১৬:৩২

আপডেট:
৭ এপ্রিল ২০১৯ ১৬:৩৩

ছবি সংগৃহীত

প্রিয়াঙ্কা চোপড়া এবং নিক জোনাসের বিয়ে নাকি ভেঙে যাচ্ছে- এমন গুঞ্জন কিছু দিন ধরেই। নিন্দুকদের অভিযোগ, নিকের পরিবারের সদস্যরা নাকি প্রিয়াঙ্কার আচরণে একেবারেই খুশি নন। সকলে ভেবেছিলেন, প্রিয়াঙ্কা গুছিয়ে সংসার করবেন। কিন্তু তা নয়, নায়িকা নাকি শুধু পার্টি করতেই ব্যস্ত থাকেন। পাশাপাশি নিকের হয়ে যে কোনো সিদ্ধান্ত তিনিই নেন। একে নিকের ব্যক্তি স্বাধীনতায় হস্তক্ষেপ হচ্ছে।

তবে সংসার ভেঙে যাওয়ার আপাতত তেমন কোনো আশঙ্কা নাকি নেই। প্রিয়াঙ্কার মুখপাত্রও এই খবরের সত্যতা স্বীকার করেননি। যে মার্কিন ম্যাগাজিনে প্রথম এই খবর প্রকাশিত হয়েছিল, তার বিরুদ্ধে নাকি আইনি ব্যবস্থাও নেবেন প্রিয়াঙ্কা।


এ তো গেল তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়া। কিন্তু নিকের সঙ্গে সম্পর্ক যে আ-দৌ নষ্ট হয়নি, সোশ্যাল মিডিয়ায় তা প্রমাণের জন্য নাকি আপ্রাণ চেষ্টা করছেন পিগি চপস।

বিচ্ছেদের জল্পনা শুরু হওয়ার পরই জোনাস ভাইদের অনুষ্ঠানে যাওয়ার ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় দিয়েছিলেন প্রিয়াঙ্কা। আটলান্টার অনুষ্ঠানে মঞ্চে যখন নিক, সে সময় দর্শকাসনে বসে প্রিয়াঙ্কার উৎসাহ দেয়ার ভিডিও ছড়িয়েছিল ওয়েব ওয়ালে। এবার নিকের বোন এবং ভাইয়ের স্ত্রীর সঙ্গেও নিজের ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করলেন নায়িকা। আর সেসব দেখে সিনে মহলের অনেকেরই মনে হচ্ছে, নিকের পরিবারের সঙ্গে তার সুসম্পর্ক রয়েছে- এসব সোশ্যাল পোস্টে যেন তারই ইঙ্গিত দিচ্ছেন প্রিয়াঙ্কা।

২০১৮ সালের ১ ডিসেম্বর ভারতের রাজস্থানের যোধপুরের উমেদ ভবন প্যালেসে অনুষ্ঠিত হয় বলিউড ও হলিউড তারকা প্রিয়াঙ্কা চোপড়া ও মার্কিন গায়ক নিক জোনাসের বিয়ে। তাদের প্রথম বিয়েটি হয়েছে খ্রিষ্টান ক্যাথলিক রীতিতে। দ্বিতীয়টি হিন্দু রীতিতে।

সম্প্রতি এক মার্কিন ম্যাগাজিন প্রিয়াঙ্কা-নিকের সংসার টিকছে না বলে খবর প্রকাশ করে। এই তারকা দম্পতির বিচ্ছেদের প্রথম খবরটি প্রকাশ করে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ওকে ম্যাগাজিন। প্রিয়াঙ্কা-নিকের ভক্তরা এমন খবর শুনেই বেশ চমকে ছিলেন, মনে কষ্টও পেয়েছেন তারা।

আর এই খবর প্রকাশের পর ভীষণ রেগেছেন নায়িকা প্রিয়াঙ্কা। ওই ম্যাগাজিনের বিরুদ্ধে এবার আইনি পদক্ষেপ নিতে চলেছেন তিনি। আইনজীবীর মতে, দুজনেরই পাবলিক ইমেজ নষ্ট করার ক্ষতিপূরণ দাবি করা হবে।

নতুনসময় / আইআর