ঢাকা বুধবার, ৫ই অক্টোবর ২০২২, ২১শে আশ্বিন ১৪২৯


জিডি করায় অভিযোগকারীকে গাল দিলেন ইউপি সদস্য রশিদ


২০ সেপ্টেম্বর ২০২২ ০১:৩৫

জিডি করায় অভিযোগকারীকে অকথ্য ভাষায় গাল দেয়ার অভিযোগ উঠেছে নারায়নগণ্জের বক্তাবলী ইউনিয়ন পরিষদের ১নং ওয়ার্ডের সদস্য রশিদের বিরুদ্ধে। সম্প্রতি, কোন এক বিষয়ে তাকে রশিদ মেম্বারকে বিবাদী করে ফতুল্লা মডেল থানায় একটি সাধারণ ডায়েরী করেন জাকির হোসেন। আর এতেই ক্ষিপ্ত হয়ে জিডির বাদী . জাকির হোসেনকে ফোন করে অকথ্য ভাষায় গালাগালি করেন এ ইউপি সদস্য।

অভিযোগকারী জাকির হোসেন জানান, রশিদ মেম্বারের ভাষা এতো খারাপ ছিল যা মুখে আনাও পাপ। তার অভিযোগ, তাকে দুই টুকরো করে প্রাণে মেরে ফেলার হুমকিও দেন রশিদ মেম্বার।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, এক সময়ে ইটের ভাটায় শ্রমিক হিসেবে কাজ করতেন ইউপি সদস্য রশিদ। যুবদলের রাজনীতি পেরিয়ে বিএনপির রাজনীতি। এরপর নির্বাচিত হয়ে এখন তিনি নারায়নগণ্জের বক্তাবলী ইউনিয়ন পরিষদের ১নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য। তিনি নির্বাচিত জনপ্রতিনিধি হলেও তার বিরুদ্ধে বিস্তর অভিযোগ স্থানীয়দের।

অভিযোগের ব্যাপারে বক্তাবলী ইউনিয়ন পরিষদের ১নং ওয়ার্ড মেম্বার রশিদ আহম্মেদ গণমাধ্যমকে বলেন, ঘটনা কিছু সত্য ও কিছু মিথ্যা। জাকিরের শশুর আমাকে চিনেই না, তিনি আমাকে জীবনে কখনও দেখেনি। তাছাড়া জামাই জাকির একজন মামলাবাজ। বিভিন্ন জায়গায় ফিটিং দিয়ে চলে।

এদিকে, রশিদ মেম্বারের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের আর্জি জানিয়েছেন মো. জাকির হোসেন। তিনি বলেন, একজন জনপ্রতিনিধি হোক উচ্চ শিক্ষিত, স্বল্প শিক্ষিত বা মূর্খ। তার ভাষা হবে মার্জিত, শালিন বা ভদ্র। অথচ, তার কর্মকান্ডে মনেই হয় না যে, একজন জনপ্রতিনিধি।

রশিদ মেম্বারের বিতর্কিত কর্মকান্ডে তার বিরুদ্ধে প্রশাসনিক হস্তক্ষেপ কামনা করেছে সচেতন এলাকাবাসী।