ঢাকা বুধবার, ৫ই অক্টোবর ২০২২, ২১শে আশ্বিন ১৪২৯


যৌতুকের দাবীতে কাস্তের ছ্যাকায় পুড়েছে নববধুর মুখমন্ডল


১৭ সেপ্টেম্বর ২০২২ ০০:২৫

সংগৃহিত

যৌতুকের দাবীতে ভোলার চরফ্যাশন উপজেলার দুলারহাটে বিয়ের দুই মাসের মাথায় কাস্তে গরম করে গৃহবধূর গাল পুড়ে দিয়ে চিকিৎসা ছাড়া ঘরে অবরুদ্ধ করে নির্যাতনের অভিযোগ পাওয়া গেছে স্বামী মোঃ হোসাইনের বিরুদ্ধে।

বৃহস্পতিবার রাতে দুলারহাট থানার নীলকমল ইউনিয়নে চর নুরুল আমিন গ্রামের ৯নং ওয়ার্ডে এ ঘটনা ঘটেছে । শুক্রবার সন্ধ্যায় ভিক্টিককে উদ্ধার করে থানায় অভিযোগ শেষে চিকিৎসার জন‍্য হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

এঘটনায় গৃহবধূ আছমার বাবা বাদী হয়ে দুলারহাট থানায় অভিযোগ দায়েরের পর দুলারহাট থানা পুলিশ স্বামী হোসাইনকে আটক করার সত‍্যতা নিশ্চিত করে ওসি মোঃ আনোয়ারুল হক আমাদের সময়কে জানান মামলার প্রস্তুতি চলছে।

মোঃ হোসাইন চর নুরুল আমিন গ্রামের ৯নং ওয়ার্ডের মোঃ মোঃ রুহুল আমিনের ছেলে। গৃহবধূ আছমা একই এলাকার মোঃ মতলবের মেয়ে।

গৃহবধূ আছমা জানান, তার স্বামী হোসাইনের দুই মাস আগে বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকে আছমার পরিবারের কাছ থেকে যৌতুক আনার জন্য বলে স্বামী হোসাইন। আছমার পরিবার যৌতুক দিতে অপারগতা স্বীকার করেন। তারপর থেকে গৃহবধূ আছমার ওপর নির্যাতন শুরু করতে থাকে স্বামী হোসাইন। নির্যাতন সইতে না পেরে স্বামী হোসাইনের সংসার করবেনা বলে আছমা স্বামীকে জানায় এতে হোসাইন ক্ষিপ্ত হয়ে বৃহস্পতিবার রাতে কাস্তে গরম করে গৃহবধূ আছমার বাম পাশের গাল পুড়ে দিয়ে চিকিৎসা ছাড়া ঘরে অবরুদ্ধ করে নির্যাতন করেন।

পরে আছমার বাবা মোঃ মতলব খবর পেয়ে স্বামীর বাড়ী থেকে মেয়েকে উদ্ধার করে দুলারহাট থানায় এসে স্বামী হোসাইনকে আসামী করে অভিযোগ দায়ের করেন।

অভিযুক্ত স্বামী মোঃ হোসাইন ঘটনার সত্যতা স্বীকার করেন। দুলারহাট থানার ওসি মোঃ আনোয়ারুল হক জানান, এঘটনায় ভিক্টিম ও তার বাবা থানায় এসে স্বামীকে আসামীকে করে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন।