ঢাকা সোমবার, ২৭শে সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৩ই আশ্বিন ১৪২৮


জান্নাত-ই শেষ করে দিলো আক্ষেপ মামুনুলের


২১ এপ্রিল ২০২১ ০১:৪৮

ফাইল ছবি

জান্নাত-ই শেষ করে দিলো। এমন আক্ষেপ করেছেন হেফাজত নেতা মামুনুল হক। বর্তমানে তিনি গোয়েন্দাদের জিজ্ঞাসাবাদের মুখোমুখি।

গত ৩ এপ্রিল নারায়নগঞ্জের সোনারগাঁও রয়্যাল রিসোর্টে জান্নাত আরা ঝর্না নামের নারীসহ ধরা পড়ার পর তিনি তাকে স্ত্রী বলে দাবি করেন। অবশ্য তার স্বপক্ষে কোনকাগজ দেখাতে পারেননি। পরে তিনি সেটিকে মানবিক বিয়ে বলে নিজেও প্রচার করেছেন।

পরবর্তীতে তিনি এমন কর্মকান্ডে নিজের ভূল ও ক্ষমাও চান। কিন্তু পরিস্থিতি আর তার অনুকুলে যায়নি। আটকও হতে হয়েছে তাকে।

গ্রেফতারের আগে একবার ফেসবুক লাইভে এসে অনুশুচনা গ্রেফতারের পরে গোয়েন্দাদের নিকট অনুশোচনা করছেন। জান্নাত-ই শেষ করে দিল তাকে।

তবে জানা গেছে, রিসোর্টে যেতে জোর করেনি জান্নাত। মামুনুল হক-ই তাকে নিয়ে গেছে। রোযার আগে আমোদ ফূর্তি করাই ছিল লক্ষ্য।

এদিকে সরকারকেকে বিপাকে ফেলতে গিয়ে নিজেদের ফাঁদে পা দিয়ে কোনঠাসা হয়ে পড়েছে হেফাজত ইসলাম। হেফাজত ইসলামের শীর্ষ নেতাদের গ্রেফতার, সারাদেশে ভাংচুর ও অগ্নিসংযোগের মামলা নিয়ে বিপাকে পড়েছে হেফাজতের শীর্ষ নেতারা।

গতকাল ১৯ এপ্রিল রাত ১০টায় মাননীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামালের সাথে সাক্ষাৎ করেছে হেফাজতের শীর্ষ নেতারা। নিজেদের ভুল স্বীকার করে অনুতপ্ত হয়ে এবং সরকারের কাছে ক্ষমা চেয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর কাছে দফায় দফায় তদবির করছে তারা। আলোচনার মাধ্যমে সরকারকে মানাতে চেষ্টাও করে যাচ্ছে হেফাজত ইসলাম। একাধিক গোয়েন্দা সংস্থার সাথে বৈঠক এবং পুলিশের কর্তাব্যাক্তিদের সাথে বৈঠক করছে দফায় দফায়। হেফাজত ইসলামের আমির বাবুনগরি নরম সুরে সরকারের কাছে আবেদন জানিয়েছে তাদের গ্রেফতার না করার জন্য। এমন কি তাদের শীর্ষ নেতা যুগ্ম মহাসচিব মামুনুল হক আটকের পরও কোন ক্ষোভ দেখায়নি হেফাজত।

এমন কি মামুনুল গ্রেফতারের পর অনেক শীর্ষ নেতা গা ঢাকা দিয়েছে, একই সাথে হেফাজতের নেতারা কোন আন্দোলন কর্মসূচি দিবে না এমন মুচলেকাও দিতে রাজি হয়েছে পুলিশ ও গোয়েন্দা সংস্থার সাথে। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর সাথে বৈঠকে উপস্থিত থাকা হেফাজতের এক নেতা নাম প্রকাশ না করার শর্তে বলেন- আমরা আর কোন আন্দোলন কর্মসূচি দিচ্ছি না যাতে সরকারের বিপক্ষে যায়। আর সেই সাথে আমাদের যুগ্ম-মহাসচিব মামুনুল হক এর ব্যাপারে প্রচলিত আইনে যা বিচার হবে তা আমরা মেনে নিতেও প্রস্তুত আছি। শুধু আমাদের দলের নেতাদের আর কোন মামলায় গ্রেফতার করবে না এমন আশ্বাস চেয়েছি মন্ত্রীর কাছে।