ঢাকা সোমবার, ১৮ই নভেম্বর ২০১৯, ৫ই অগ্রহায়ণ ১৪২৬


দ্বিতীয় ম্যাচেই সিরিজ জয় করতে চান মুশফিক


৪ নভেম্বর ২০১৯ ১৫:২৫

আপডেট:
১৮ নভেম্বর ২০১৯ ১১:১৩

ভারত সফরে প্রথম ম্যাচেই প্রথম জয় পেল বাংলাদেশ। এই প্রথম শুধু এ সফরের প্রথম নয় ভারতের বিপক্ষে বাংলাদেশের প্রথম টি-টোয়েন্টি জয়ও বটে।


আর এমন ঐতিহাসিক জয়ের নায়ক দলের মি. ডিপেন্ডেবল টাইগার মুশফিকুর রহিম। তার ৪৩ বলে ৬০ রানের অপরাজিত ইনিংসই জয়ের দুয়ারে পৌঁছে দেয় বাংলাদেশকে।

এ জয়ের পর বেশ আত্মবিশ্বাসী আর চাঙ্গা হয়ে উঠেছে বাংলাদেশ ক্রিকেট দল। অথচ শুধু ক্রিকেটাররাই নয়, দেশের সব ক্রিকেটপ্রেমীই হতাশায় ভুগছিলেন এতদিন।

যে সফরে বাংলাদেশ ক্রিকেটের দুই প্রাণভোমরা সাকিব-তামিম নেই, নেই সাইফউদ্দিনের মতো অলরাউন্ডার; সে দল ভারতের সঙ্গে সম্মানজনক খেলাটা প্রদর্শন করতে পারবে কি? সে প্রশ্নও জেগেছিল টাইগারভক্তদের মনে।

আর সেই দল এখন স্বপ্ন দেখছে সিরিজ জয়ের। স্বপ্ন দেখতেই পারে। রোববার রাতে সব ডিপার্টমেন্টে যেভাবে নাস্তানাবুদ হয়েছে কোহলি-বুমরাহবিহীন ভারতীয় ক্রিকেট দল, তাতে এমন আশা অমূলক তো নয়ই বরং করাই উচিত।

তবে আর সবার চেয়ে অনেক বেশি আত্মবিশ্বাসী ও দৃঢ়প্রত্যয়ী দেখা গেল খোদ মুশফিককেই। তিন ম্যাচের সিরিজে দ্বিতীয়টিতেই সিরিজ নিশ্চিত করতে চান তিনি।

ম্যাচ-পরবর্তী সংবাদ সম্মেলনে এসে তিনি জানিয়েছেন, দলের লক্ষ্য এখন সিরিজ জয়। যেটি হয়ে যেতে পারে সিরিজের দ্বিতীয় ম্যাচেই।

মুশফিক বলেন, ‘আমরা এখানে প্রত্যেক ম্যাচে প্রতিদ্বন্দ্বিতা গড়ার চিন্তা নিয়ে এসেছিলাম। আমরা দিনকে দিন উন্নতির চেষ্টা করেছি এবং সেই অনুযায়ী কাজ করেছি। প্রথম ম্যাচ জয়ের পর আমাদের লক্ষ্য থাকবে আরেকটি জয় তুলে নেয়ার। অসম্ভব বলে কিছুই নেই। আমাদের সিরিজ জয়ের চিন্তা থাকবে অবশ্যই। হয়তো দ্বিতীয় ম্যাচেই হয়ে যেতে পারে।’

তিনি আরও বলেন, ‘এর আগে আমরা ভারতের বিপক্ষে টি-টোয়েন্টিতে জিততে পারিনি। এবার পেরেছি। আর সেই পারাটাকে সর্বোচ্চ সাফল্যের দিকে নিয়ে যেতে চাই। সিরিজ জয় করে টি-টোয়েন্টি র্যাংকিংকে ওপরে তুলতে চাই।’

তিনি বলেন, ‘বেশ কিছু নিয়মিত খেলোয়াড়কে ছাড়া খেলে এ জয় এসেছে। তরুণরা তাদের দায়িত্ব ঠিকমতো পালন করেছে। বিশেষ করে বোলাররা ভারতের এমন উইকেটে যেভাবে বোলিং করেছে, তা সত্যিই প্রশংসনীয়। ওরাই ম্যাচটা সেটআপ করে দিয়েছে।’

পরের ম্যাচে তরুণদের পারফরমের এমন ধারাবাহিকতা থাকলে সে ম্যাচেও ভারতকে হারানো যাবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন মুশফিক।

ভারতকে টি-টোয়েন্টি সিরিজ হারানোর আশা করার পেছনের যুক্তি হিসেবে এ উইকেটকিপার-ব্যাটসম্যান বলেন, এই পুরো সফরে আমাদের হারানোর কিছু নেই। কিন্তু সিরিজের প্রথম জয় আমাদের ভিন্ন চিন্তা করাবে। হয়তো আমরা নতুন মোমেন্টাম পাব।’

এদিকে টাইগারদের মিডিয়া ম্যানেজার রাবিদ ইমাম জানিয়েছেন, দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টি খেলতে আজ (সোমবার) বাংলাদেশ সময় দুপুর ১২টায় দিল্লি ছেড়ে রাজকোটে চলে যাবে বাংলাদেশ ক্রিকেট দল।

প্রায় দেড় ঘণ্টা ভ্রমণ শেষে বাংলাদেশ সময় বেলা ২টায় রাজকোট পৌঁছাবে বাংলাদেশ ক্রিকেট দল।

দলগতভাবে আজ কোনো অনুশীলন সেশন নেই।

আগামী বৃহস্পতিবার (৭ নভেম্বর) রাজকোটের স্বরাষ্ট্র ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশন স্টেডিয়ামে সিরিজের দ্বিতীয় ম্যাচ খেলবে বাংলাদেশ ও ভারত।