ঢাকা বৃহঃস্পতিবার, ২০শে ফেব্রুয়ারি ২০২০, ৮ই ফাল্গুন ১৪২৬


নুর-রাব্বানীর সুপারিশে ঢাবির সিনেটে সাদ্দাম


১৩ ফেব্রুয়ারি ২০২০ ১৯:৪৯

আপডেট:
২০ ফেব্রুয়ারি ২০২০ ০২:৪৪

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদের (ডাকসু) সহ-সাধারণ সম্পাদক সাদ্দাম হোসেনকে বিশ্ববিদ্যালয়ের সিনেট সদস্য করা হয়েছে। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় আদেশ, ১৯৭৩ এর আর্টিকেল ২০ (১) (এম) অনুযায়ী বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামান এই মনোনয়ন দেন। তার এই মনোনয়নে সুপারিশ করেছেন ভিপি নুরুল হক নুর ও জিএস গোলাম রাব্বানী।

সাদ্দাম হোসেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় সিনেটে ছাত্রলীগ থেকে অপসারিত সভাপতি রেজওয়ানুল হক চৌধুরী শোভনের স্থলাভিষিক্ত হলেন।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদের (ডাকসু) সহ-সাধারণ সম্পাদক সাদ্দাম হোসেনকে বিশ্ববিদ্যালয়ের সিনেট সদস্য করা হয়েছে। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় আদেশ, ১৯৭৩ এর আর্টিকেল ২০ (১) (এম) অনুযায়ী বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামান এই মনোনয়ন দেন। তার এই মনোনয়নে সুপারিশ করেছেন ভিপি নুরুল হক নুর ও জিএস গোলাম রাব্বানী।

সাদ্দাম হোসেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় সিনেটে ছাত্রলীগ থেকে অপসারিত সভাপতি রেজওয়ানুল হক চৌধুরী শোভনের স্থলাভিষিক্ত হলেন।

৮ ফেব্রুয়ারি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদের (ডাকসু) কার্যনির্বাহী সভায় সিনেটে ছাত্র প্রতিনিধি মনোনয়নের প্রসঙ্গ উঠে। ছাত্রলীগের প্রায় সব প্রতিনিধি সাদ্দাম হোসেনের নাম প্রস্তাব করেন। সেই প্রস্তাবে সম্মতি দেন ভিপি নুর ও জিএস গোলাম রাব্বানী। পরে তাদের সুপারিশ অনুযায়ীই ভিসি সাদ্দাম হোসনকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সিনেট সদস্য হিসেবে নিয়োগ দেন।

এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামান বলেন, ডাকসুতে সিনেট সদস্য পদ একটি শূন্য ছিলো। ডাকসুর ভিপি-জিএস ও সদস্যদের সুপারিশ অনুযায়ী এজিএস সাদ্দাম হোসনকে সিনেট সদস্য হিসেবে মনোনীত করা হয়েছে।

এ বিষয়ে ভিপি নুর বলেন, ডাকসুতে ছাত্রলীগের প্রতিনিধিদের প্রাধান্য। সভায় তারা সবাই সাদ্দামকে সিনেটে চায়। পরে আমরা সেই প্রস্তাব সমর্থন করি।

তিনি বলেন, আগে যখন ৫ সদস্যের ছাত্রপ্রতিনিধি নির্বাচন করা হয় তখন আমার কোনো মত নেয়া হয়নি। এবারের সভায় আমাদের মত চাওয়া হয়েছে।

এর আগে ঢাবি সিনেটের এই পদে ছিলেন ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি রেজওয়ানুল হক চৌধুরী শোভন। গত বছরের ১৬ সেপ্টেম্বর দুর্নীতি ও বাণিজ্যের অভিযোগে ছাত্রলীগের পদ থেকে অপসারণের পর তিনি সিনেট সদস্যের পদ থেকেও পদত্যাগ করেছিলেন। তাই ওই পদটি শূন্য থাকায় উপাচার্য সাদ্দাম হোসেনকে মনোনীত করেন।