ঢাকা সোমবার, ২৬শে আগস্ট ২০১৯, ১১ই ভাদ্র ১৪২৬


মাদকবিরোধী প্রচারণায় যাত্রা শুরু করলো ডিজিটাল ডিভাইস "কিয়স্ক"


১৫ মে ২০১৯ ১৭:১৭

আপডেট:
২৬ আগস্ট ২০১৯ ০২:৫২

সমাজকে মাদকের হাত থেকে রক্ষা করতে মাদকবিরোধী প্রচারণায় ডিজিটাল ডিভাইস "কিয়স্ক" প্রচার কার্জক্রমের উদ্বোধন করেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন।

বুধবার (১৫ মে) মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের প্রধান কার্যালয়ে মোঃ জামাল উদ্দিন আহমেদের সভাপতিত্বে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর আয়োজিত মাদকবিরোধী প্রচারণায় এ ডিভাইসের মাধ্যমে প্রচার কার্জক্রমের উদ্বোধন করে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী।


তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী মাদকের বিরুদ্ধে জিরো টলারেন্স নীতি ঘোষণা করেছেন। আমরা এই জিরো টলারেন্স নীতি অনুসরণ করে মাদকবিরোধী এই যুদ্ধে জয়ী হওয়ার সর্বপ্রকার চেষ্টা করছি। মাদক একটি ব্যাধি আমাদের সমাজে এমন ভাবে ছড়িয়ে আছে যা নিয়ন্ত্রণ করতে না পারলে ভবিষ্যতের স্বপ্ন সবকিছু বাধাপ্রাপ্ত হবে। সেজন্যই মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জিরো টলারেন্স নীতি ঘোষণা করেছেন।

তিনি আরো বলেন, এই জায়গা থেকে বের হয়ে আসতে আমরা সর্বপ্রকার চেষ্টা করছি। মাদক আইনে শাস্তির বিধান করা হয়েছে। বর্ডার ক্রস করে মাদক যেন আমাদের দেশে প্রবেশ করতে না পারে সেজন্য আমরা সর্বোচ্চ চেষ্টা করছি আমাদের সমাজে ৬৫% তরুণ এবং যুবক কর্মক্ষম আছে তারা যদি হারিয়ে যায় তাহলে দেশের উন্নয়ন ব্যহত হবে।

এছাড়াও তিনি বলেন, আমরা কিয়স্ক’র মাধ্যমে প্রচার করতে চাচ্ছি মাদকের কুফল এবং মাদকের প্রভাব সম্পর্কে। জনগণের কাছে আমরা মাদকের কুফল সম্পর্কে বার্তা পৌঁছিয়ে দিব। মাদকের কোন সুফল নেই। মাদক এর ফলে মেধা নষ্ট হচ্ছে। যুব সমাজ এবং বৈবাহিক জীবন নষ্ট হয়ে যায়। সামাজিক জীবনে এর কি প্রভাব হয় আমরা সবকিছুই কিওস্ক এর মাধ্যমে জানিয়ে দিতে চাই। আমরা শিক্ষক এবং মসজিদের ইমাম কে আহবান করছি তারা যেন এক মিনিট হলেও দাঁড়িয়ে মাদকের কুফল সম্পর্কে কিছু বলে। মাদক থেকে যেন আমরা ভবিষ্যৎ প্রজন্মকে রক্ষা করতে পারি সে জন্যই আমাদের এই প্রচেষ্টা। আমাদের এই প্রচেষ্টা অব্যাহত থাকবে। মায়ানমারের প্রধানমন্ত্রীকে বলেছিলাম আপনার দেশ থেকে মাদক পাচার বন্ধ করুন। তখন তিনি বললেন আপনাদের দেশে মাদক চাহিদা বন্ধ করুন। আমাদের দেশের মাদকের চাহিদা কমানোর আমরা সর্বোচ্চ চেষ্টা করছি। কিয়স্ক এর মাধ্যমে ২৪ ঘন্টা ব্যাপী মাদকের প্রভাব। মাদকের কুফল সম্পর্কে জানতে পারবে। যুব সমাজকে মাদক মুক্ত সমাজ গড়ে সবাইকে একসাথে ঐক্যবদ্ধ হয়ে বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা গড়তে কাজ করতে হবে।

এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন, মোঃ শহিদুজ্জামান (সচিব, সুরক্ষা সেবা বিভাগ, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রণালয়), মোঃ জামাল উদ্দিন আহমেদ ( মহাপরিচালক, মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর) প্রমুখ।

নতুনসময়/রাখি/আইকে