ঢাকা মঙ্গলবার, ১৬ই জুলাই ২০২৪, ২রা শ্রাবণ ১৪৩১


স্বাস্থ্যসেবা থেকে মানুষকে বঞ্চিত করেছিল খালেদা জিয়া : প্রধানমন্ত্রী


১২ নভেম্বর ২০২৩ ১২:০০

ছবি সংগৃহীত

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, আওয়ামী লীগ সরকার কমিউনিটি ক্লিনিক চালু করার পর বিএনপি ক্ষমতায় এসে তা বন্ধ করে দিয়েছিল। তিনি বলেন, ২১ বছর পর আমরা সরকার গঠন করি, জনগণের সেবার সুযোগ পাই। তখন থেকে আমাদের প্রচেষ্টায় এদেশের মানুষকে, বিশেষ করে স্বাস্থ্য সেবা জনগণের দোরগোড়ায় পৌঁছে দেওয়া, এটা জাতির পিতাই শুরু করেছিলেন।

রবিবার (১২ নভেম্বর) সকালে রাজধানীর একটি হোটেলে ২য় জাতীয় কুষ্ঠ সম্মেলন অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী এসব কথা বলেন।

শেখ হাসিনা বলেন, ১৯৯৬ থেকে ২০০১ সাল পর্যন্ত ক্ষমতায় ছিল আওয়ামী লীগ। তখন ১৮ হাজার কমিউনিটি ক্লিনিক করার পরিকল্পনা নেওয়া হয়। দশ হাজারের মতো নির্মাণ করে চার হাজার চালু করা হয়। প্রধানমন্ত্রী বলেন, বিনা পয়সায় সেখানে ওষুধ দেওয়া হয়, যে কারণে মানুষের মধ্যে ব্যাপক সাড়া ফেলে কমিউনিটি ক্লিনিক। দুর্ভাগ্যের বিষয় হলো, ২০০১ সালের অক্টোবরের নির্বাচনে আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় আসতে পারেনি। তখন বিএনপি ক্ষমতা আসে। প্রধানমন্ত্রী হন খালেদা জিয়া, সঙ্গে সঙ্গে কমিউনিটি ক্লিনিক বন্ধ করে দেয়। স্বাস্থ্যসেবা থেকে মানুষকে বঞ্চিত করে। এটাই হচ্ছে আমাদের দুর্ভাগ্য।

সরকারপ্রধান আরও বলেন, দেশে যাতে প্রাইভেট হাসপাতাল গড়ে ওঠে, তার জন্য প্রাইভেট হাসপাতালের সব যন্ত্রপাতির ওপর ট্যাক্স, বিশেষ করে শিশুদের চিকিৎসার জন্য ট্যাক্স একেবারে শূন্য করে দেয় তার সরকার। বেসরকারি উদ্যোক্তা তৈরির জন্য তাদের উৎসাহিত করা হয়। তাদের জন্য সব ধরনের সুযোগ-সুবিধা করে দেন তারা। যার জন্য সারা বাংলাদেশে প্রাইভেট হাসপাতাল গড়ে উঠেছে।

শেখ হাসিনা বলেন, বাংলাদেশে মানুষের ভাগ্য পরিবর্তনের জন্য সারাটা জীবন আমার বাবা সংগ্রাম করেছিলেন। সেই সংগ্রামের মধ্য দিয়ে আমরা স্বাধীন জাতি হিসেবে নিজেদের গড়ে তুলতে পারছি। তার সেই স্বপ্নপূরণই আমার একমাত্র লক্ষ্য।