ঢাকা বুধবার, ১৯শে ডিসেম্বর ২০১৮, ৬ই পৌষ ১৪২৫


ছাড় দিল বিএনপি


৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮ ১৮:৫৯

আপডেট:
১০ সেপ্টেম্বর ২০১৮ ০৮:১৭

অনেক আপত্তি থাকা সত্বেও ২০ দলীয় জোটের বৈঠকে জাতীয় ঐক্যের স্বার্থে ছাড় দেয়ার বিষয়ে বিএনপির পরিকল্পনায় সাড়া দিয়েছে শরিকরা। দেশ, গণতন্ত্র, মানুষের ভোটের অধিকার ফিরিয়ে দিতে ২০ দল এই ছাড় দিতে রাজি হয়েছে বলে বৈঠক শেষে জানিয়েছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য নজরুল ইসলাম খান।

রোববার (৯ সেপ্টেম্বর) রাতে বিএনপি চেয়ারপারসনের গুলশান কার্যালয়ে জোটের বৈঠকে এ সিদ্ধান্ত হয়।

আগের দিন রাজধানীতে এক আলোচনায় মির্জা ফখরুল জাতীয় ঐক্যের স্বার্থে ছাড় দেয়ার বিষয়ে সিদ্ধান্তের বিষয়টি নিশ্চিত করেন। তবে অন্যান্য শরিকরা আপত্তি জানায়। আগামী জাতীয় নির্বাচনকে সামনে রেখে সরকারবিরোধী বৃহত্তর ঐক্য গড়ার চেষ্টায় বিএনপি। ২০টি দল নিয়ে গড়া মোর্চার পাশাপাশি তৃতীয় শক্তি হওয়ার ঘোষণা দিয়ে কাজ করা যুক্তফ্রন্ট আর গণফোরাম নেতা কামাল হোসেনের সঙ্গে ঐক্যের চেষ্টা চালাচ্ছে বিএনপি যাকে দলটি ‘জাতীয় ঐক্য’বলছে।

আরো পড়ুন> ১০০ জনের তালিকায় শামীম ওসমান

যুক্তফ্রন্টের তিন শরিকের মধ্যে বিকল্পধারার সভাপতি এ কিউ এম বদরুদ্দোজা চৌধুরী এক সময় বিএনপির ডাকসাইটে নেতা ছিলেন। ২০০১ সালের নির্বাচনে জিতে তাকে রাষ্ট্রপতিও করে বিএনপি। তবে অসম্মানজনকভাবে তার বিদায় হয়। আর ওই সরকারের আমলেই বিএনপি ভেঙে তিনি গঠন করেন বিকল্প ধারা।

আরেক শরিক জেএসডির আ স ম আবদুর রব ছাত্রজীবনে ছাত্রলীগের আলোচিত নেতা ছিলেন। পরে ছাত্রলীগ ভেঙে গঠন করা জাসদে যোগ দেন তিনি। পাকিস্তান আমলে আন্দোলনে ভূমিকা থাকলেও ১৯৮৮ সালে এরশাদ সরকারের আমলে ‘গৃহপালিত বিরোধীদলীয় নেতা’হিসেবে পরিচিতি পান। ১৯৯৬ সালের নির্বাচনে লক্ষ্মীপুর-২ আসন থেকে তিনি সংসদ সদস্য নির্বাচিত হতে পারলেও পরে আর জিততে পারেননি।

আরো পড়ুন>ধর্ষণ করতে গিয়ে ধরা খেলেন মহিলা লীগ নেত্রীর ছেলে!

নাগরিক ঐক্যের মাহমুদুর রহমান মান্না বহু ঘাটের জল খেয়ে শেষে আওয়ামী লীগে যোগ দেন ৯০ এর দশকে। দুইবার নৌকা প্রতীক নিয়ে নির্বাচন করেন বগুড়া-২ আসনে। কিন্তু বিএনপির প্রার্থীকে চ্যালেঞ্জ জানানোর মতো ভোট পাননি। এর আগে অন্য একটি দলের হয়ে ভোট করে জামানত হারান।

বিএনপি কী ছাড় দেয় সেটা ভবিষ্যতের বিষয়। তবে যুক্তফ্রন্ট তাদের কাছে তিনশ আসনের মধ্যে ১৫০টি চেয়ে বসে আছে। আবার ক্ষমতায় যেতে পারলে দুই বছর দেশ তারা চালাবেন, এমন শর্ত দেয়ার অপেক্ষায় তারা।

এমএ