ঢাকা মঙ্গলবার, ২৩শে অক্টোবর ২০১৮, ৮ই কার্তিক ১৪২৫


যুক্তরাজ্যে আত্মহত্যা প্রতিরোধক মন্ত্রী!


১১ অক্টোবর ২০১৮ ১৫:৫৭

আপডেট:
২৩ অক্টোবর ২০১৮ ০৩:৪৫

ছবি সংগৃহীত

আত্মহত্যা ঠেকাতে মন্ত্রী নিয়োগ দিয়েছে যুক্তরাজ্য। প্রধানমন্ত্রী তেরেসা মে দেশটির স্বাস্থ্যমন্ত্রী জ্যাকি প্রাইসকে এই মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব দিয়েছেন। আত্মহত্যা প্রতিরোধে মন্ত্রী নিয়োগের ঘটনা বিশ্বে এটাই প্রথম। খবর বিবিসি।

যুক্তরাজ্যে দিন দিন মানুষ মানসিক স্বাস্থ্য সমস্যায় আক্রান্ত হচ্ছে এবং আত্মহত্যার হার বেড়েই চলেছে। প্রতিবছর দেশটিতে ৪ হাজার ৫শ মানুষ আত্মহত্যার পথ বেছে নেন। বিপুলসংখ্যক মানুষের আত্মহত্যার প্রবণতা রুখে দিতে তেরেসা মে এ পদক্ষেপ নিয়েছেন।

বুধবার ১০ অক্টোবর ছিল বিশ্ব মানসিক স্বাস্থ্য দিবস। এ উপলক্ষে বিশ্বের প্রায় ৫০টি দেশের প্রতিনিধি লন্ডনে সমবেত হয়েছেন। এমন সময়েই ব্রিটিশ সরকার আত্মহত্যা প্রতিরোধে মন্ত্রী নিয়োগের ঘোষণাটি দিল। মন্ত্রী নিয়োগের পাশাপাশি বিনামূল্যে মানসিক চিকিৎসা সেবা দিতে অর্থও বরাদ্দ করেছে তেরেসা মের সরকার। এই মন্ত্রীকে সহযোগিতা করার জন্য ১৮ লাখ পাউন্ডের একটি তহবিল দেয়া হয়েছে।

দেশটিতে মানসিক স্বাস্থ্য, বৈষম্য ও আত্মহত্যা প্রতিরোধবিষয়ক মন্ত্রী নিয়োগ দেয়ার জন্য নতুন পদ সৃষ্ট করা হয় । পাশাপাশি ২৪ ঘণ্টার জন্য একটি গোপন টেলিফোন নাম্বার ও মানসিক সমস্যা নিয়ে জনগণের দোরগোড়ায় পরামর্শ সেবা পৌঁছে দেয়ার ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে।

ব্রিটিশ সরকার দাবি করছে, রক্ষণশীল দলের এমপি ডয়লি-প্রাইসকে মন্ত্রী নিয়োগ দেয়ার পর আত্মহত্যার মাধ্যমে মানুষের জীবন যাওয়া বন্ধ হবে। এ পদক্ষেপে দেশটিতে দারুণভাবে কমে আসবে আত্মহত্যার ঘটনা।

পরিসংখ্যান বলছে, ২০১০ সাল থেকে ২০১৭ সাল পর্যন্ত যুক্তরাজ্যে কম বয়সীদের মধ্যে আত্মহত্যার হার বেড়েছে ৬৭ ভাগ। দেশটির সরকার বলছে, মানসিক স্বাস্থ্যসেবা নিশ্চিত করতে স্কুলে স্কুলে নতুন টিম পাঠানো হবে। যারা শিক্ষার্থীদের মানসিক স্বাস্থ্য পরীক্ষাসহ তাদের চিকিৎসাসেবা দিতে পারবে।

আরকেএইচ